সঙ্গীনির যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির গোপন উপায়

যৌনতা একটা মধুর অনুভুতি। যদি আপনি যৌন মিলনে চরম সুখ পেতে চান বা আপনার সঙ্গীনিকে চরম যৌন সুখ দিতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যি সঙ্গীনির যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির গোপন উপায় গুলো জানতে হবে। সহবাসে পরিপুর্ন সুখ পেতে চাই আপনার সঙ্গীনিকে ভালভাবে যৌন উত্তেজিত করে তোলা। কিন্তু আমারা অনেকেই জানি না যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় । মেয়েদের শরীরে এমন কিছু অঙ্গ আছে যেগুলো স্পর্শ করলে মেয়েরা অনেক বেশি উত্তেজিত হয়ে পরে। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ছেলেরা সেসব জায়গার প্রতি খেয়াল দেয় না। যৌনতা সীমাবদ্ধ থাকে ব্রেস্ট, নিপল, আর কিসের মধ্যেই। এর পর ওরাল সেক্স, আর ইন্টারকোর্স। ব্যাপারটা যেন একঘেয়েই। চলুন জেনে নিই সঙ্গীনির যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় ।

১. ঘাড়ের পিছন দিকঃ

আপনি জানেন কি ঘাড় মেয়েদের শরীরে এটাই সেক্সুয়ালি টার্নিং অন জায়গা। কিন্তু ছেলেরা এজায়গার উপর খুব অল্পই সময় দেয়। কিন্তু শুধু সহজেই এখানে স্পর্শ করেও একজন মেয়েকে যৌন উত্তেজিত করা যায়। এটা একটা ভাল যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায়। একজন মেয়ে যখন সামান্য টার্ন অন থাকে তখন তার পেছন দিকে চুল সরিয়ে হাত বুলিয়ে দেখুন। আস্তে আস্তে কিস করুন। দেখবেন সে পাগল হয়ে যাবে। সামান্য লিক করুন, সুড়সুড়ি দিন। এরপর তার ব্রেস্টের দিকে যান। দেখবেন সে কতটা হর্নি হয়ে যায়। এছাড়া সঙ্গীনির যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় হিসাবে বেষ্ট সেক্স পজিশন গুলো জানতে পারেন ।

২. নাভি স্পর্শঃ

এটা প্রমানিত যে নাভি মেয়েদের একটা অন্যতম সেক্সুয়াল জায়গা । যে কোন মেয়েকে তার নাভিতে স্পর্শ করলে সে অবশ্যই উত্তেজিত হবে। নাভিতে জিভ দিয়ে স্পর্শ করা বা চুমু খাওয়া যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায়।

৩. থাই স্পর্শঃ

আপনি প্রথমেই যৌনাংগে স্পর্শ না করেও তার আশে পাশের থাই এর নরম জায়গাগুলো স্পর্শ করেই তাকে হর্নি করে দিতে পারেন। হাত এবং মুখ কাজে লাগান, কিস করুন। হালকা সুরসুরি দিন । কিন্তু আসল জায়গায় যাওয়ার আগে সরে আসুন, দেখবেন সে কি করে। সে নিজেই আপনাকে তার যৌনাঙ্গে হাত দিতে বলবে ।

এ বিষয়ে আরও পড়ুন   কিছু প্রয়োজনীয় সেক্স স্টাইল

৪. কান স্পর্শঃ

যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় হিসাবে কান স্পর্শ করেতে পারেন । কানে হালকা স্পর্শ, চুমু অনেক বেশি সেক্সুয়ালি উত্তেজক করে দেয় মেয়েদের। কানের উপর আস্তে আস্তে নিঃশ্বাস ফেললে পাগল হয়ে যায় সে। হালকা কামড় দিতে পারেন কানের যে কোন জায়গায়। লিক করতে পারেন কানের চার পাশে যে কোন জায়গায়। ্মনে রাখবেন কানের ছিদ্রে কখন নয়, এটি মেয়েদের জন্যে একটা টার্ন অফ।

৫. পায়ে হাত বুলানোঃ

আপনি হয়ত দেখে থাকবেন পর্ন ভিডিওতে ছেলেরা অনেক সময় মেয়েদের পায়ে চুমু খায় বা পায়ের আঙ্গুল মুখে দিয়ে চুস্তে থাকে। কারন এটা একটা ভাল যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় । তাই পায়ে হাত বুলিয়ে সুড়সুড়ি দিতে পারেন। পায়ের আঙ্গুল মুখে নিয়ে চুষলেও টার্ন অন হয় অনেকেই। তবে কিছু মেয়ের এটি পছন্দ নয়।

৬. হাতের তালু ও পায়ের পাতাঃ

আপনি জানেন কি হাতেই লুকিয়ে আছে অসংখ্য সেক্সুয়াল ফিলিংস। হাতের উপর আংগুল চালান, সুড়সুড়ি দিন। হাতের আঙ্গুল মুখে নিয়ে চুষতে পারেন। এটি যেন তাকে পরবর্তী সেক্সুয়াল এক্টিভিটিরই মেসেজ দেওয়া। দেখবেন সেও সাড়া দেবে। এটিও টার্ন অন করে তাকে। জেনে নিন সেক্সের সময় যে ভুলগুলো কখনো করবেন না ।

৭. কলার বোনঃ

সঙ্গিনীকে উত্তেজিত করতে ব্রেস্টের দিকে যাওয়ার আগে, তার গলার নিচে, কলার বোনের দিকে নজর দিন একটু। জিহবা দিয়ে সার্কেল করে লিক করুন। হালকা কামড় দিন। এতে সে বুঝবে আপনি কতটা চান আপনার সঙ্গিনীকে।

৮. পিঠ স্পর্শঃ

পিঠ স্পর্শ করেন মেয়েদের যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধি করা যায়। পিঠ, বিশেষ করে পিঠের নিচে, কোমড়ের দিকের অংশটাতে স্পর্শ ও আদর চায় মেয়েরা। মেরুদন্ড বরাবর চুমু দিতে দিতে নিচে নেমে যান, কিস করুন সে বিশেষ জায়গাটিতে। তার সেক্স করার মুড আরো বাড়বেই।