পেঁপের নানা গুণাবলী

কাঁচা ও পাকা দুই ধরনের পেঁপেই শরীরের জন্য উপকারী। কাঁচা পেঁপেতে রয়েছে প্যাপেইন ও কাইমোপ্যাপেইন নামের প্রচুর প্রোটিওলাইটিক এনজাইম। এ উপাদান আমিষ ভাঙতে ও হজমে সাহায্য করে। তাই গরু, খাসি বা মুরগির মাংসের সঙ্গে কাঁচা পেঁপে বা রান্না করা পেঁপে খেলে বদহজম কম হয়, কোষ্ঠকাঠিন্য হয় না। মাংস রান্নায় পেঁপের ব্যবহারে চর্বির পরিমাণও কমায়।

প্রচুর ভিটামিন এ ও সি রয়েছে পাকা পেঁপেতে। ভিটামিন এ ও সি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, যুদ্ধ করে সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে, দাঁত, চুল, ত্বকের সুরক্ষা করে। তা ছাড়া কেরোটিন, ভিটামিন সি ও ফ্ল্যাভোনয়েড হলো অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা ক্যানসার ও হূদেরাগ প্রতিরোধ করে। এ ছাড়া এর ফলিক অ্যাসিড হোমোসিস্টিনকে ভেঙে হূদেরাগের ঝুঁকি কমায়। পেঁপে এমন একটি ফল, যাতে কোলেস্টেরল ও চর্বির পরিমাণ প্রায় শূন্য শতাংশ।

পেপের কিছু ঔষধি গুণ
১.কাঁচা পেঁপে বা পেঁপে গাছের আঠা পেটের অসুখ, কোষ্ঠকাঠিন্য প্রভৃতি রোগের জন্য বিশেষ উপকারী।

২.প্রতিদিন দুপুরে ভাত খাওয়ার পর এবং রাতে ভাত বা রুটি খাওয়ার পর এক টুকরা কাঁচা পেঁপে ভালো করে চিবিয়ে   খেয়ে এক গ্লাস পানি খেলে সকালে পেট পরিষ্কার হয়।

৩.যেসব মায়ের সদ্য বাচ্চা হয়েছে কাঁচা পেঁপের তরকারি নিয়মিত খেলে তাদের স্তনের দুধ বাড়বে।

৪.কাঁচা পেঁপের আঠা বা দুধের আর একটি গুণ হলোÑ হজম সম্পর্কিত যে কোনো অসুখেই এটি কাজ দেয়।

৫.আমাশা থেকে মুক্তি পাওয়ার অদ্ভুত শক্তি আছে কাঁচা পেঁপের আঠায়।

এ বিষয়ে আরও পড়ুন   ফোন সেক্স - পুরুষদের যৌন দুর্বলতা এবং দ্রুত বীর্যপাতের কারণ