ব্রা পেন্টি নাইটি টপস এ ধরনের পোশাক কি ইসলামে জায়েয আছে

প্রশ্নঃ বর্তমানে বাজারে এমন হারে ছোট পোশাক গুলা বিক্রি হচ্ছে (ব্রা পেন্টি  টপস নাইটি ইত্যাদি) যা সবাই নিতেছে। যেনো মূল পোশাকের চেয়ে এসবের গুরুত্ব বেশি। কেউ চেরা পোশাক পরছে,,আর কেউ অধিক হারে এ গুলা (ব্রা পেন্টি  নাইটি টপস ইত্যাদি,) কিনে টাকা অপচয় করছে,,,আমার প্রশ্ন হলো এ ধরনের পোশাক কি ইসলামে জায়েয আছে নাকি?এবং এগুলা অধিক হারে ক্রয় করে টাকা নষ্ট করছে,,, এটা কি ঠিক? উত্তর দিলে উপকৃত হব।

ধন্যবাদ আপনাকে।

উত্তরঃ এগুলো কিনা বা পড়া আমার জ্ঞানের অনুসারে ইসলামে নাজায়ের কোন কারণ দেখতেছি না যেহেতু এগুলো ভিতরে পড়ে। এটি না জায়েয হবে তখন যখন এগুলো পড়ে মেয়েরা এর উপরে অন্য পোশাক, যেমন ব্রা পড়ার পর কামিজ ও পেন্টি পড়ার পর সেলোয়ার না পরে লোকজনের সামনে বের হওয়া। পোশাক তো মানুষ পরে তাঁর লজ্জাস্থান ঢেকে রাখার জন্য। তাঁর লজ্জাস্থানকে আকর্ষণীয় করার জন্য নয়।

মেয়েদের এই ধরনের কাপড় তাদের লজ্জাস্থানকে স্বামীর কাছে আকর্ষনীয় করে তুলে। আর মেয়েদেরকে এ ধরনের পোশাক পরতে কিছু অসুবিধার কারনে। যেমনঃ মেয়েদের কে ব্রা পরতে হয় তাদের স্তনকে সুগঠিত রাখতে এবং ঝুলে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে। কোথায় বের হলে যাতে স্তন এদিক-সেদিক নড়াচড়া না করে। এটি মেয়েদের জন্য একটি বিব্রতকর সমস্যা। নাইটি পোশাক পরাও আমার মনে হয় হারাম হবে না যদি সে তাঁর স্বামী সামনে পরে থাকে এবং এই পোশাক পরার পর অন্য পুরুষদের সামনে যদি না বের হয়। টাকার অপচয় সম্পর্কে আপনি যে প্রশ্নটি করেছেন, এক্ষেত্রে একই কথা প্রযোজ্য হবে, সেটি হচ্ছে কেউ যদি তা প্রয়োজন মতে কিনে তাহলে এখানে অপচয়ের সজ্ঞায় পরে না।

এটি অপচয়ের পর্যায়ে পরে তখন যখন কেউ প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত হারে কিনবে। যেমনঃ কোন মেয়ের মাসে তাঁর ব্রা পেন্টি ৬ টি হলেই যথেষ্ট। কিন্তু সে যদি মাসে ১০ বা ২০ টি কিনে তাহলে এটা অপচয়ের পর্যায়ে পরবে এটাই স্বাভাবিক।