প্রথম ডেটের ক্ষেত্রে ছেলেদের নিষিদ্ধ যে ১০টি জিনিস

স্কুল অথবা কলেজের সব থেকে সুন্দর মেয়েটির সঙ্গে ডেটে যাওয়ার ইচ্ছা সকলেরই থাকে। ডেট করার পর বন্ধুদের কাছে বিখ্যাত হওয়ার প্রবণতাও দেখা যায়। কিন্তু কতজনের ডেট সাফল্যতা পায়! এই ডেটকে কেন্দ্র করেও বেশ কয়েকটি রিয়েলিটি শো করা হয়েছিল।

কিন্তু সেখানেও স্মার্ট, গুড লুকিং ছেলেরাও মেয়েদের মন জয় করতে সফল হয়নি। শুধু ডেট করলেই তো আর হবে না। তাতে সাফল্য হলে তবেই না আপনি জিততে পারবেন!

প্রথম ডেট করার সময় এই ১০টি জিনিস কখনওই করবেন নাঃ

১. দেরি কখনওই নয়
যে সময় দেওয়া হয়েছে তার থেকে দেরি যেন কখনওই না হয়। কারণ মেয়েরা অপেক্ষা করতে একদমই ভালবাসে না। তবে যদি তাকে একটু বেশি প্রাধান্য দান করতে হয় তাহলে যথা স্থানে পৌঁছে তার জন্য অপেক্ষা করুন। দেখবেন সে এসে অবশ্যই নিজের দেরির জন্য আপনাকে ‘সরি’ বলবে। আর কাউকে সময় দিয়ে দেরি করা কখনওই উচিত নয়। ডেটটাকে আপনি নিজের চাকরির পরীক্ষার সঙ্গেই তুলনা করে নিন না। তাহলে দেখবেন দেরি হবে না।

২. নিজের সম্বন্ধে বেশি কথা বলবেন না
দেখা হওয়ার পর গর গর করে নিজের সম্বন্ধে এক নাগাড়ে বকে যাবেন না। এটা কোনও মেয়েই পছন্দ করে না। তাই নিজে স্বাভাবিক হন, তারপর তাকেও স্বাভাবিক হওয়ার সুযোগ দিন। তাকে কথা বলতে দিন। এতে নিজের সামনের মানুষটিকে কিছুটা হলেও বুঝতে পারবেন। সেই বুঝে নিজের কথা বলুন।

৩. ড্রেস কোড
মনে রাখবেন আপনার ড্রেস কোড যেন ঠিক থাকে। কারণ আপনার ড্রেস কিন্তু অনেক কথাই বলে দেবে। ধরুন আপনার চুল বেশ বড় তাহলে চুল যেন পরিষ্কার ভাবে বাঁধা থাকে। অথবা আপনি যদি ফ্যাশনেবল ড্রেস পরতে ভালবাসেন তাহলে খেয়াল রাখবেন, আপনার ব্যক্তিত্ব যেন আপনার জামার মধ্যে দিয়েই প্রকাশ পায়।

এ বিষয়ে আরও পড়ুন   “বিয়ের ১৩ বছর পর স্ত্রী পুরানো প্রেমিকের সাথে চরম পর্যায়ে….”

৪. সব কিছুতে হ্যাঁ বলবেন না
তার সমস্ত কথায় হ্যাঁ বলে ঘাড় নাড়বেন না। আপনার যে তার প্রতি দুর্বলতা আছে সেটা তার সমস্ত কথায় হ্যাঁ বলে প্রমাণিত করার কোনও দরকার নেই। কখনও যদি সে ভুল কথা বলে তাহলে যুক্তি দিয়ে তাকে বোঝান। এরপরেও যদি সে বুঝতে না চায় তাহলে ভাববেন, সে আপনার ঠিক পছন্দ নয়। তাই সেদিনের পরে আর তার সঙ্গে ডেট না করাই ভালো।

৫. নিজের খুঁত ধরুন
যদি দেখেন যে সে ঠিক স্বাছন্দ্যবোধ করছে না, তাহলে তার সামনে নিজের বিভিন্ন বিষয়ের ওপর খুঁত তুলে ধরুন। এতে তার মনোবল কিছুটা হলেও বাড়বে। কখনও ভাববেন না নিজের খুঁত তুলে ধরছেন বলে সে খারাপ ভাববে। আসলে বেশিরভাগ মানুষ নিজের ভালো দিকটাই সকলের সামনে তুলে ধরে। এরপর আস্তে আস্তে সে ও আপনাকে নিজের মনের কথা বলতে স্বচ্ছন্দ্যবোধ করবে।

৬. শারীরিক সম্পর্কের কথা বলবেন না
আপনি কার সঙ্গে কবে কি করেছেন তা কখনওই প্রথম ডেটে বলা উচিত নয়। আগে মানুষটিকে চিনুন, জানুন, বুঝুন তারপর ওই সমস্ত কথা বলুন। নয়ত বর্তমান সম্প্ররকের মধ্যে কাঁটা হিসেবে থেকে যাবে আপনার অতীত সম্পর্ক। অবশ্য যদি সে জানতে চায় তাহলে কিছুটা হিন্টস দিতে পারেন। কিন্তু সব কিছু বলার দরকার নেই।

৭. খুব বেশি প্র্যাক্টিকাল কথা বলবেন না
প্র্যাক্টিকাল কথা অর্থাৎ, আপনার চাকরির ব্যপারে, বসের ব্যপারে, বাড়ি, বাবা-মা, দেশের কথা এই সব আর কি। সারাক্ষণ দেশের কথা বললে অথবা আপনার চাকরির কথা বললে কখনওই কারোর ভাল লাগবে না। গুরু গম্ভীর আলোচনা করা খুব একটা ঠিক নয়। এতে আপনার তাকে স্বাভাবিক করার বদলে অস্বস্তিতে ফেলবেন আপনি।

৮. মদ্যপান উচিত নয়
প্রথম ডেটেই মদ্যপান করা ঠিক নয়। কারণ আপনারা দুজনেই দুজনের কাছে অপরিচিত। তাই কিছুটা চেনা পরিচিত না হয়ে এবং একে ওপরের শক্তির কথা না জেনে একদম নয়।

এ বিষয়ে আরও পড়ুন   জেনে নিন, কতদিন পরপর হস্তমৈথুন করলে কোনো সমস্যা হবে না

৯. ফোনে কথা বলবেন না
দরকারি ফোন আপনার আসতেই পারে। সেক্ষেত্রে বেশিক্ষণ ফোনে কথা বলবেন না। অফিসের খুব দরকারি ফোন ছাড়া ফোন ধরবেন না।

১০. বিল মেটানো
এখন বেশিরভাগ মেয়েরাই স্বাধীন হয়ে থাকে। তাই আপনি ছেলে বলেই যে আপনাকে পুরো বিল দিতে হবে তা কখনওই ঠিক নয়। আবার অনেক মেয়ে পছন্দ করেন যে ছেলেরা বিল মিটিয়ে দিক। কিন্তু আপনি তাকেও গুরুত্ব দিয়ে বুঝিয়ে দিতে পারেন যে, এই রেস্টুরেন্টি আপনার পছন্দের জায়গা তাই আপনি ট্রিট দিচ্ছেন। কিন্তু যখন তার পছন্দের জায়গাতে আপনি যাবেন তখন যেন সে ট্রিট দেয়। কখনওই কোনও সম্পর্কের শুরু যেন টাকার অঙ্ক দেখে না হয়। তাহলে কিন্তু খুব ভুগতে হবে আপনাকে।